Friday, February 23, 2024
বাড়িSliderসেপ্টেম্বর মাসের দিবস

সেপ্টেম্বর মাসের দিবস

উত্তরণ ডেস্ক: ০৮ সেপ্টেম্বর : আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস
শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত মানুষকে সাক্ষরতা দানের উদ্দেশেই ৮ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। ১৯৬৫ সালের ৮-১৯ সেপ্টেম্বর ইরানের রাজধানী তেহরানে বিশ^ সাক্ষরতা সম্মেলনে এর সূত্রপাত হয়েছিল। ১৯৬৫ সালের ১৭ নভেম্বর ইউনেস্কো ৮ সেপ্টেম্বরকে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। ব্যক্তি, গোষ্ঠী ও সমাজের মধ্যে শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা ও তাৎপর্য তুলে ধরার লক্ষ্যে এ দিবসটি নির্ধারণ করা হয়। ১৯৬৬ সালে দিবসটি ইউনেস্কো প্রথম উদযাপন করে। স্বাধীন বাংলাদেশে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস উদযাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এরই ধারাবাহিকতায় সরকার প্রতি বছর আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে পালন করে আসছে বাংলাদেশ।

১৫ সেপ্টেম্বর : আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস
আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস। জাতিসংঘের সদস্যভুক্ত দেশগুলোতে গণতন্ত্র সম্পর্কে আগ্রহ সৃষ্টি এবং গণতন্ত্র চর্চাকে উৎসাহিত করার প্রয়াসে দিবসটি পালিত হয়। ২০০৭ সালে এ দিবসের ঘোষণা দেয় জাতিসংঘ। এরপর থেকেই জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের উদ্যোগে প্রতি বছর ১৫ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস পালিত হয়ে আসছে।
১৭ সেপ্টেম্বর : শিক্ষা দিবস
১৯৬২ সালের এই দিনে সামরিক শাসকদের শিক্ষা সংকোচন নীতি এবং শোষণ-বঞ্চনার বিরুদ্ধে ছাত্র গণ-আন্দোলনে পুলিশের গুলিতে নিহত হন বাবুল, ওয়াজিউল্লাহ ও গোলাম মোস্তফা। তখন থেকে এই দিনটিকে শিক্ষা দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

২৭ সেপ্টেম্বর : বিশ^ পর্যটন দিবস
বিশ্বব্যাপী ২৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ব  পর্যটন দিবস হিসেবে পালন করা হয়। দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের পর বিশ্ব জুড়ে পর্যটন শিল্পের বিকাশ ঘটলে ১৯৭০ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ব পর্যটন সংস্থা গঠনের প্রস্তাব অনুমোদন করে জাতিসংঘ। সম্মেলনে এর নাম, লক্ষ্য, উদ্দেশ্য পুনঃমূল্যায়ন ও নির্ধারণ করা হয়। তখন থেকে এটি ‘বিশ্ব পর্যটন সংস্থা’ নামে চিহ্নিত করার বিষয়ে সদস্যদের মধ্যে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠিত হয়। সংস্থাটি নতুন নামে পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রম শুরু করে ১৯৭৪ সালে। ১০ বছর পর অর্থাৎ ১৯৮০ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের অধীনস্থ বিশ্ব পর্যটন সংস্থার বার্ষিক সম্মেলনে বিশ্ব ব্যাপী পর্যটন দিবস পালনের প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে গৃহীত হয়। প্রস্তাব কার্যকর করার দিন ২৭ সেপ্টেম্বর থেকেই বিশ্ব পর্যটন সংস্থার সদস্য রাষ্ট্রসমূহ আনুষ্ঠানিকভাবে এই দিবসটি পালন করে আসছে। পরবর্তীতে ১৯৯৭ সালে তুরস্কে অনুষ্ঠিত বার্ষিক সম্মেলনে এতে একটি স্বাগতিক দেশ নির্বাচনের মাধ্যমে বিশ্ব  পর্যটন দিবস পালনের কার্যক্রমে আরও গতিশীলতা আনয়নের পক্ষে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠিত হয়।

২৮ সেপ্টেম্বর : আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস
২০০২ সালে বুলগেরিয়ার রাজধানী সোফিয়া থেকে আন্তর্জাতিক সুশীল সমাজের নেতৃত্বে প্রতি বছর ২৮ সেপ্টেম্বর ‘International Rights to Know Day’ হিসেবে উদযাপনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ইউনেস্কো কর্তৃক ২০১৫ সালের সিদ্ধান্ত (রেজু-৩৮ সি/৭০) অনুযায়ী ২০১৬ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে দিবসটিকে ‘International Day for Universal Access to Information (IDUAI)’ নামে উদযাপন করা হয়। ২০০৯ সালে আইন পাসের পর বাংলাদেশে প্রতি বছর আন্তর্জাতিক তথ্য জানার অধিকার দিবস (International Rights to Know Day) পালিত হয়। ২০১৬ সালে ইউনেস্কোর সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দিবসটিকে ‘International Day for Universal Access to Information’ হিসেবে পালন করে আসছে। তথ্য কমিশন এরপর থেকে দিবসটিকে বাংলায় ‘আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস’ হিসেবে নামকরণের মাধ্যমে সারাদেশে বিভিন্ন কর্মসূচির ভিতর পালন করে থাকে।

৩০ সেপ্টেম্বর : জাতীয় কন্যাশিশু দিবস
বিশ্বজুড়ে লিঙ্গবৈষম্য দূর করতে ২০১২ সালের ১১ অক্টোবর প্রথম এ দিবসটি পালন করা হয়। জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলো প্রতি বছর এ দিবসটি পালন করে থাকে। তবে বিভিন্ন দেশ বিভিন্ন দিনে দিবসটি পালন করে থাকে। বাংলাদেশে দিবসটি পালন করা হয় ৩০ সেপ্টেম্বর।
মেয়েদের শিক্ষার অধিকার, পরিপুষ্টি, আইনি সহায়তা ও ন্যায় অধিকার, চিকিৎসা সুবিধা ও বৈষম্য থেকে সুরক্ষা, নারীর বিরুদ্ধে হিংসা ও বলপূর্বক বাল্যবিবাহ বন্ধে কার্যকর ভূমিকা পালনের লক্ষ্যে এ দিবসের সূচনা হয়। বাংলাদেশ সরকারের মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় ২০০০ সালে সরকারি এক আদেশের মাধ্যমে শিশু অধিকার সপ্তাহের দ্বিতীয় দিনকে কন্যাশিশু দিবস হিসেবে পালনের লক্ষ্যে ৩০ সেপ্টেম্বরকে ‘জাতীয় কন্যাশিশু দিবস’ ঘোষণা করে। এর আগে দ্য হাঙ্গার প্রজেক্ট ও ৫৪টি সংগঠন কন্যাশিশু দিবস পালন করার দাবি জানিয়ে আসছিল।

– ফারুক শাহ

আরও পড়ুন
spot_img

জনপ্রিয় সংবাদ

মন্তব্য