Saturday, July 13, 2024
বাড়িউত্তরণ-২০২৩ত্রয়োদশ বর্ষ, ষষ্ঠ সংখ্যা, মে-২০২৩বিএনপির টার্গেট অর্থনীতিকে ধ্বংস করা

বিএনপির টার্গেট অর্থনীতিকে ধ্বংস করা

উত্তরণ প্রতিবেদন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উচ্চতা বাড়াতে বিদেশে গিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনা দেশ বিক্রি করতে বিদেশে যাননি, গিয়েছেন দেশের উচ্চতা বাড়াতে, আগামী বাজেটের জন্য সহযোগিতা চাইতে, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে যারা কষ্ট পাচ্ছে তাদের জীবন বাঁচাতে।’
ওবায়দুল কাদের গত ১ মে মহান মে দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সমানে জাতীয় শ্রমিক লীগ আয়োজিত সমাবেশ ও আলোচনা সভায় এ-কথা বলেন।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজের জন্য নয়, দেশের মানুষের শান্তির জন্য বিদেশ সফরে গেছেন। তার এই সফর বাংলাদেশকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে। এই সফর বাংলাদেশকে, এই জাতিকে আত্মশক্তিতে বলীয়ান করেছে। ওবায়দুল কাদের বলেন, রাজনীতির পর বিএনপির এখন টার্গেট দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করা। অর্থনীতির চাকা বন্ধ করতে তারা নবনব কৌশলে নতুন নতুন ষড়যন্ত্র করছে। আগুন লাগাতে হবে, লুটপাট করতে হবে- এটাই বিএনপির স্বভাব। অর্থপাচারকারী লুটেরাদের হাতে দেশের ক্ষমতা জনগণ দিবে না।
জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি নুর কুতুব আলম মান্নানের সভাপতিত্বে সমাবেশে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমদ মন্নাফি, যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস, শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কেএম আযম খসরু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
আওয়ামী লীগের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন শুরু
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র ও প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের দলের সদস্য পদ প্রথম নবায়নের মধ্য দিয়ে গত ২৯ এপ্রিল থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দেশব্যাপী সদস্য সংগ্রহ এবং নবায়ন কার্যক্রম শুরু হয়েছে।
গত ২৯ এপ্রিল রংপুর বিভাগীয় আওয়ামী লীগের সদস্য কার্যক্রম উদ্বোধনকালে দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। নির্বাচন করতে দেবেন না, এ দুঃসাহস দেখিয়ে লাভ নেই।
বিএনপি ব্যর্থ, গণ-আন্দোলন নিয়ে পথহারা পথিকের মতো। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বৃহত্তর রংপুর বিভাগের নেতাদের নিয়ে এক বিশেষ বৈঠকে প্রথম সজীব ওয়াজেদ জয়ের সদস্য পদ নবায়নের ঘোষণা দেন রংপুর বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী। সজীব ওয়াজেদ জয়কে ২০১০ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি তার পিতৃভূমি রংপুর জেলার পীরগঞ্জ আওয়ামী লীগের ১ নম্বর প্রাথমিক সদস্য পদ দেওয়া হয়। বর্তমানে তিনি রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটিরও সদস্য।
সজীব ওয়াজেদ জয়ের পর আওয়ামী লীগের সদস্য পদ নবায়ন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। এরপর একে একে দলের সদস্য পদ নবায়ন করেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শাজাহান খান এমপি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি, কোষাধ্যক্ষ এএইচএম আশিকুর রহমান এমপি, দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশী এমপি, রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এমপি, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান তাদের সদস্য পদ নবায়ন করেন।

আরও পড়ুন
spot_img

জনপ্রিয় সংবাদ

মন্তব্য