Sunday, July 3, 2022
বাড়িক্রীড়াতেঁতুলতলা মাঠ জনগণের

তেঁতুলতলা মাঠ জনগণের

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা গণমাধ্যমের সামনে পড়ে শোনান মাঠ রক্ষা আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক সৈয়দা রত। সুবিবেচনার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার বিশ্বাস ছিল, প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা গেলে মাঠ ফিরে পাব।’

  আরিফ সোহেল: ইস্যুটা ছিল রাজধানীর কলাবাগানের তেঁতুলতলা মাঠ নিয়ে, আদৌ এই মাঠ জনগণের থাকবে, না-কি হয়ে যাবে বহুতল ভবন- ব্যাপক প্রশ্ন ছিল এ নিয়ে। চলছিল আন্দোলন-সংগ্রামের পাশাপাশি পুলিশি টানাহেঁচড়া, গ্রেফতারও। বেগতিক পরিস্থিতি হওয়ার আগেই সেখানে যথারীতি যুক্ত হয়ে গেলেন জনবান্ধব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জনগণের নেত্রী আবারও দাঁড়ালেন জনগণের পাশে। গত ২৮ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর বরাত দিয়ে থানা ভবনের নির্মাণকাজ বন্ধ ঘোষণা করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ‘কলাবাগানের তেঁতুলতলা মাঠে থানা নির্মাণের কাজ হবে না। এ জায়গাটি আগে যেভাবে জনসাধারণ ব্যবহার করতেন, আগামীতেও সেভাবে ব্যবহার করা যাবে। এখানে খেলতে পারবে স্থানীয় ছেলেমেয়েরা।’ এটা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা।
ঠিক ওইদিনই তেঁতুলতলা মাঠে ভবন নির্মাণ কাজের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছিলেন স্থানীয়রা। কিন্তু যখন ঘোষণা এলোÑ প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন, মাঠে থানার ভবন হচ্ছে না। প্রতিবাদ সমাবেশ রূপ নিল আনন্দের সমাবেশে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা গণমাধ্যমের সামনে পড়ে শোনান মাঠ রক্ষা আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক সৈয়দা রতœা। সুবিবেচনার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার বিশ্বাস ছিল, প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা গেলে মাঠ ফিরে পাব।’
কাউন্টিতে যাচ্ছেন আশরাফুল
আশরাফুল এখনও ফুরিয়ে যাননি- হয়তো তা প্রমাণ করতে আবারও ইংল্যান্ডের মাইনর কাউন্টি ক্রিকেট লিগ খেলতে যাচ্ছেন। এর আগে প্রায় নিয়মিতই কাউন্টি খেলেছেন আমিনুল ইসলাম বুলবুল ও মিনহাজুল আবেদিন নান্নুরা। আবার কাউন্টির মূল লিগে সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবালরা খেলেছেন। মাইনর কাউন্টিতে মোহাম্মদ আশরাফুল, এনামুল হক জুনিয়ররা বেশ কয়েকবারই খেলেছেন। আশরাফুল ডার্বিশায়ার হয়ে খেলবেন। ৭ মে ইংল্যান্ডের উদ্দেশে দেশ ছেড়েছেন সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। দেশ ছাড়ার আগে ভক্ত-সমর্থকদের কাছে দোয়াও চেয়েছেন তিনি। আশরাফুল ছাড়াও বাংলাদেশের ৬ ক্রিকেটার অংশ নেবেন এই কাউন্টিতে। ইমরুল কায়েস, ফরহাদ রেজা, আরাফাত সানি, তানভীর ইসলাম, জহুরুল ইসলাম অমি ও সোহরাওয়ার্দী শুভরা খেলবেন বিভিন্ন দলের হয়ে।
বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক আশরাফুল খেলবেন লেথুন পার্ক সিসি ক্লাবের হয়ে। ইংল্যান্ডে কাউন্টি লিগের পর সবচেয়ে জনপ্রিয় টুর্নামেন্ট হচ্ছে ডার্বিশায়ার কাউন্টি লিগ। নিজের খেলা নিয়ে আশরাফুল বলেছেন, ‘আমার দল দুটো ম্যাচ খেলে ফেলেছে। আমি তৃতীয় ম্যাচ থেকে মাঠে নামতে পারব।’ এছাড়া ইমরুল এবার ল্যাঙ্কাশায়ারের একটি ক্লাবের হয়ে প্রায় চার মাস ধরে দীর্ঘ ও স্বল্প পরিসরের ম্যাচ খেলবেন।

আইপিএল খেলবেন সালমা
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) মহিলাদের সংস্করণে গত দুবার খেলেছেন বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের ডানহাতি পেসার জাহানারা আলম। গত আসরে তার সঙ্গে সুযোগ পেয়েছিলেন অফস্পিন অলরাউন্ডার সালমা খাতুন। গত আসরে সালমা ট্রেইলব্লেজার্সের হয়ে খেলেছেন। কোনো ব্যত্যয় না ঘটলে এবারও একই দলের হয়ে খেলার সুযোগ পাচ্ছেন। দল চূড়ান্ত না হলেও এবার মহিলা আইপিএল খেলা নিশ্চিত হয়েছে তার। তবে এবার আর ডাক পাননি জাহানারা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি) ইতোমধ্যে সালমাকে ছাড়পত্র দিয়েছে।
ইতোমধ্যে চলছে ছেলেদের আইপিএল। শেষ দিকে মাঠে গড়াবে মেয়েদের আইপিএলও। এর আগেই বিদেশি ক্রিকেটারদের নিশ্চিত করছে দলগুলো। একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে সালমা ডাক পেয়েছেন। এবার তিনি মেয়েদের ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেরা একাদশে ঠাঁই করে নিয়েছেন। বাংলাদেশ দল তেমন ভালো করতে না পারলেও সালমা নজরকাড়া নৈপুণ্য দেখিয়েছেন। এই অফস্পিনার ৭ ইনিংসে ২২.৪০ গড়ে ১০ উইকেট নিয়েছেন। তার ওভারপ্রতি রান খরচার হার ছিল ঈর্ষণীয় ৩.৭৯। আবার ব্যাট হাতে শেষের দিকে কার্যকর ব্যাটিংও করেছেন। সব মিলিয়ে তাকে আইপিএল থেকে ডাকা হয়েছে। চলতি মাসের মাঝামাঝি তাই ভারত রওনা হবেন তিনি। সালমা এ বিষয়ে বলেছেন, ‘এবারও নারী আইপিএল থেকে ডাক পেয়েছি। শুনেছি বিসিবি থেকে ছাড়পত্র দিয়েছে। তবে আমি এখনও ঢাকায় না ফেরায় নিশ্চিত না। শুনেছি, এবার বাংলাদেশ থেকে আমি একাই ডাক পেয়েছি। সব ঠিক থাকলে ১৫ বা ১৬ মে দেশ ছাড়ব।’

লম্বা ইনিংস টার্গেট সিডন্সের
টেস্টে লম্বা সময় ব্যাটিং করা শিখতে হবে। ওয়ানডেতে ভালো হচ্ছে। কিন্তু টেস্টে উন্নতি হয়েও হচ্ছে না। বাংলাদেশের ছেলেদের লম্বা সময় ব্যাটিং করার দিকে মনোযোগী হতে হবে। ঠিক এমন কথাই বলেছেন বাংলাদেশ কোচ জেমি সিডন্স।
দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের টেস্টের লজ্জাকে কফিন চাপা দিয়ে ফের সাদা পোশাকের লড়াইয়ে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন মুমিনুলরা। ইতোমধ্যে দুই টেস্ট ম্যাচ সিরিজ খেলতে ঢাকায় পা রেখেছে ১৮ সদস্যের শ্রীলংকা ক্রিকেট দল। চট্টগ্রামে প্রথম টেস্ট ১৫-১৯ মে। ঘরের মাঠে চলতি বছর এই প্রথম টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। যদিও আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলেছে। ঘরের মাঠ হলেও ‘দ্বীপরাষ্ট্র’ শ্রীলংকার বিপক্ষে কঠিন লড়াইয়ে পড়তে হবে মুমিনুলদের। সিরিজে ভালো ব্যাটিং করতে হবে মুমিনুলসহ সিনিয়র তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসান এবং তিন তরুণ লিটন দাস, মাহামুদুল হাসান জয় ও নাজমুল হোসেন শান্তকে। মুমিনুলদের কাছে লম্বা ইনিংস চেয়েছেন ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্স। বলেছেন, ‘টেস্টে লম্বা সময় ব্যাটিং করা শিখতে হবে। ওয়ানডেতে ভালো হচ্ছে। এবার টেস্টে উন্নতি করতে হবে। ছেলেদের লম্বা সময় ব্যাটিং করার দিকে মনোযোগী হতে হবে।’ সিরিজে দ্বিতীয় টেস্ট মিরপুরে ২৩-২৭ মে।
২০০১ সালে এশিয়ান টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ দিয়ে শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট শুরু বাংলাদেশের। এরপর দুই দেশ এখন পর্যন্ত সিরিজ খেলেছে ১০টি। পঞ্চমবারের মতো বাংলাদেশ সফরে আসছে। দুই দেশ সর্বশেষ সিরিজ খেলেছে ২০২১ সালে। সর্বশেষ সফরে এসেছিল ২০১৭ সালে। দুই দেশের ২২ মুখোমুখিতে বাংলাদেশের মাত্র একটি ২০১৬ সালে নিজেদের শততম টেস্টে কলম্বোয় টেস্ট জিতেছিল বাংলাদেশ। তবে ড্র ৪টি।

লেখক : সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য, উত্তরণ

আরও পড়ুন
- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় সংবাদ

মন্তব্য